গবেষকদের মতে পরিমাণ মতো গাঁজা সেবনে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়বে!

0

সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক: বাংলাদেশে গাঁজাকে মাদক হিসেবে ধরা হয়। কিন্তু প্রাচীন কালে বিভিন্ন চিকিৎসায় গাঁজা ব্যবহার করা হতো। তবে গাঁজার নেশা হলে, বা সে নেশা বাড়াবাড়ি পর্যায়ে গেলে জীবনে বিপদ ডেকে আনতে পারে। অবশ্য, গবেষকরা বলছেন পরিমাণ মতো গাঁজা ওষুধ হিসেবে সেবন করলে নাকি অনেক উপকার।

মৃগীরোগে ব্যবহার
নির্দিষ্ট পরিমাণে গাঁজা নিলে মৃগী জাতীয় স্নায়ু রোগ থেকে দূরে থাকা যায়। এমনটাই জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের ভার্জিনিয়া কমনওয়েলথ বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা। ২০১৩ সালেই তাদের এই গবেষণা, ফার্মাকোলজি এন্ড এক্সপেরিমেন্টাল থেরাপিউটিক্স জার্নালে প্রকাশিত হয়।

গ্লুকোমায় উপকার
প্রায় ১০ বছর আগে এই বিষয়টি জানা গেছে। যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল আই ইন্সটিটিউট জানায়, গ্লুকোমা চোখের এমন এক রোগ যাতে অন্ধত্ব আনে। কিন্তু গাঁজা গ্লুকোমা রোধে সাহায্য করে।

অ্যালঝাইমার বা স্মৃতিভ্রংশ রোগ থেকে মুক্তি
গাঁজা মস্তিস্ককে দ্রুত নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়া থেকে রক্ষা করে। এমনটাই জানিয়েছেন দ্য জার্নাল অব অ্যালঝাইমার ডিজিজ।

ক্যানসার চিকিৎসায় ব্যবহার
২০১৫ সালে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যানসার বিষয়ক ওয়েবসাইট ক্যানসার অর্গ-এ জানানো হয় গাঁজা অনেক সময় টিউমারের ঝুঁকি কমিয়ে প্রতিরোধকের ভূমিকা পালন করে।

কেমোথেরাপির ক্ষতি কমায়
ক্যানসার রোগীদের অনেক ক্ষেত্রে কেমোথেরাপি নিতে হয়। এক্ষেত্রে গাঁজা কেমোথেরাপির পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া কমায়। এছাড়া কেমোথেরাপির অনেক ক্ষতি লাঘব করে। ইউএস এজেন্সি ফর ড্রাগ জানিয়েছে এই তথ্য।

স্ট্রোক ঝুঁকি কমায়
যুক্তরাষ্ট্রের ইউনিভার্সিটি অব নটিংহাম জানায়, গাঁজা মস্তিষ্ক সুস্থ রাখতে সহায়তা করে। ফলে স্ট্রোকের ঝুঁকি কমে।

সূত্র: ডয়েচে ভেলে বাংলা

Share.

About Author

Leave A Reply