ডেঙ্গুর পরামর্শে হটলাইন চালু করেছে ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন!

0

সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক: ডেঙ্গুর পরামর্শে হটলাইন চালু করেছে বিএনপিপন্থী চিকিৎসকদের সংগঠন ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ড্যাব)।
বুধবার দুপুরে নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচতলায় ডেঙ্গু পরামর্শ কেন্দ্র ও হটলাইনের উদ্বোধন করেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, ৬৪ জেলায় এখন ডেঙ্গু। এটা আরো তীব্রতর হলে কি পরিমাণ মড়ক শুরু হবে? তার ইয়ত্তা নেই। অথচ সরকার কোনো পদক্ষেপ নেয়নি। সরকারের প্রস্তুতি কী। কী করছে তারা?

রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘যিনি প্রধান দায়িত্বে ছিলেন সেই স্বাস্থ্যমন্ত্রী দেশের বাইরে গিয়েছিলেন। শুনেছি, প্রধানমন্ত্রীও অসুস্থ, তিনিও দেশের বাইরে। এখন কোরবানির ঈদ উপলক্ষে লাখ লাখ লোক গ্রামে যাবেন। কিন্তু ডেঙ্গু প্রতিরোধে প্রত্যন্ত অঞ্চলে কোনো কার্যকর ব্যবস্থা নেই। যেখানে ঢাকাতেই এই রোগে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসক, শিক্ষার্থী সহ অনেকেই প্রতিদিন মারা যাচ্ছেন। তাহলে গ্রামগঞ্জের কী অবস্থা হবে?’

ড্যাবের সভাপতি অধ্যাপক ডা. হারুন আল রশিদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন সংগঠনের সিনিয়র সহ সভাপতি মো. আবদুস সেলিম, মহাসচিব অধ্যাপক ডা. আব্দুল সালাম, কোষাধ্যক্ষ ডা. জহিরুল ইসলাম শাকিল, ডা. মো. ফখরুজ্জামান, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক ডা. মো. সায়েম, ফারুক কাশেম, মশিউর রহমান কাজল প্রমুখ।

হটলাইন উদ্বোধনের পর নয়াপল্টন এলাকায় লিফলেট বিতরণ করেন রুহুল কবির রিজভী।

ড্যাবের প্রশংসা করে রিজভী বলেন, আজকে ডেঙ্গু আক্রান্ত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য ড্যাব হটলাইন চালু করেছে, যা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। যে কেউ ডেঙ্গু বিষয়ে পরামর্শ জানতে চাইলে সহজেই সহযোগিতা পাবেন। ০১৩০৬৮৫৯৬৬৪ নাম্বারে কল করলে যে কেউ ডেঙ্গু বিষয়ে পরামর্শ জানতে পারবেন। বিএনপির অন্য অঙ্গ সংগঠনগুলোও পাড়ায় মহল্লায় ডেঙ্গু সচেতনতায় লিফলেট বিতরণ করছে।

ড্যাবের সভাপতি অধ্যাপক ডা. হারুন আল রশিদ বলেন, ‘আমরা মানবিক কারণে কাজ করছি। ডেঙ্গু আক্রান্ত মানুষের পদভারে হাসপাতালে ঠাঁই নেই অবস্থা। এজন্য মানুষের পাশে দাঁড়াতে আমরা ড্যাবের পক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে আসছি। আমাদের হটলাইনে যে কেউ ফোন করে ডেঙ্গু রোগ নিয়ে পরামর্শ জানতে পারবেন।’

ড্যাবের মহাসচিব আবদুস সালাম বলেন, ‘ডেঙ্গু এখন সারা দেশে মহামারী আকার ধারণ করেছে। কিন্তু সরকার প্রকৃতপক্ষে কোনো পদক্ষেপ নেয়নি। ডেঙ্গু রোগ সামাল দেয়া যাচ্ছে না। অবিলম্বে ডেঙ্গুকে মহামারী ও জাতীয় দুর্যোগ ঘোষণা করা হোক। এজন্য আমরা সরকারকে দাবি জানাচ্ছি। তাহলে সবাই ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে উদ্যোগ নেবে। সবাইকে সচেতন হতে হবে, এর কোনো বিকল্প নেই।’

Share.

About Author

Leave A Reply