Tags

ঢাকা ট্রমা সেন্টার হাসপাতালের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ

0
সংবাদ প্রকাশঃ রাজধানীর ঢাকা ট্রমা সেন্টার হাসপাতালে এক রোগী ভর্তীর ৪৮ ঘন্টা পার না হতেই ৬১ ঘন্টার বিল এসেছে। এ বিষয়ে জানতে চাইলে হাসপাতাল থেকে বলা হয় ডাবল অক্সিজেন দেয়া হতে পারে, তাই হয়তো বিল বেশি হয়েছে। জানা যায় ঢাকা ট্রমা সেন্টারের লাইসেন্সের মেয়াদ শেষ হয়েছে আরও ছয় বছর আগে।
এছাড়া হাসপাতালটির আইসিইউ বিভাগও স্বস্থ্যঅধিদপ্তরের অনুমোদন বিহীন। প্রশাসনের নাকের ডগায় রোগীদের ব্ল্যাকমেইল করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে হাসপাতালটি। ডাক্তার এহসান কাদির ও ডাক্তার হাসান এর ছত্রছায়ায় হাসপাতালটিতে চলছে ব্ল্যাকমেইল করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়ার ফাঁদ। এদের সহযোগী হাসপাতালের সিইও মাহমুদুল হাসান ও এডমিন এবিএম সেলিম।
জানা যায় ডাক্তার হাসান বিএনপি সরকার এর আমলে গিয়াসউদ্দিন এর নাম ভাঙ্গিয়ে চালাতো প্রতারণার বাণিজ্য। বর্তমানে আওয়ামীলীগ সরকারের বিভিন্ন নেতার নাম ভাঙ্গিয়ে চালাচ্ছে হাসপাতালের প্রতারণা চক্র ।
Share.

About Author

Leave A Reply